ঢাকা বুধবার, ২রা ডিসেম্বর ২০২০, ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আবহাওয়া অনূকূলে থাকলে পদ্মাসেতুতে ১৭তম স্প্যান বসবে আজ


আবহাওয়া অনূকূলে থাকলে পদ্মাসেতুতে ১৭তম স্প্যান বসবে আজ

প্রভাত ফেরী ডেস্ক: আবহাওয়া অনূকূলে থাকলে মঙ্গলবার জাজিরা প্রান্তের পদ্মাসেতুর ২২ ও ২৩ নম্বর খুঁটির ওপর ৪’ডি নম্বরের ১৭ তম স্প্যান বসানো হবে।  



সেতু নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষকে এ তথ্য জানিয়েছে।



পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, দিনের আলোর মধ্যেই স্প্যানটি বসানোর পরিকল্পনা সেতু কর্তৃপক্ষের। এছাড়া এই মাসে আরও একটি স্প্যান বসানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।  ২২ ও ২৩ নম্বর পিলারের ওপর স্থায়ীভাবে স্প্যানটি বসানো হলে দৃশ্যমান হবে সেতুর ২ হাজার ৫৫০ মিটার (২ দশমিক ৫৫ কিলোমিটার)। ১৬তম স্প্যান বসানোর মাত্র সাত দিনের মাথায় বসতে চলেছে এই স্প্যান। 



প্রকল্প পরিচালক জানিয়েছেন, ড্রেজিং করে কাজ এগিয়ে নিতে হচ্ছে। এ জন্য প্রকল্প পিছিয়ে যাচ্ছে।  পদ্মার বহু রূপ। সময় এবং প্রকৃতির সঙ্গে সঙ্গে তাই পাল্টে যায় নদীর চেহারা। সবশেষ ১৬তম স্প্যানটি বসাতে খুব একটা ঝামেলা পোহাতে হয়নি। তবে ১৫তম স্প্যান বসাতে কিছু অপ্রত্যাশিত ঝামেলা হওয়ায় সময় লেগেছিল ৮ দিন। ক্রেনে তুলে নদীতে ভাসিয়ে রাখতে হয়েছিল স্প্যান। দিনরাত ড্রেজিং করে সরাতে হয়েছে নদীর তলদেশের পলি। বর্ষায় প্রায় সাড়ে ৩ মাস কাজ বন্ধ রাখার পর নদীর স্রোত কমে আসায় অক্টোবর মাসে পরিকল্পনা ছিল ৩-৪টি স্প্যান বসানোর। বসানো যায় মাত্র একটি।



দায়িত্বশীল প্রকৌশলীরা আরও জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে পদ্মাসেতু প্রকল্পের কর্মযজ্ঞ। তাই ১৭ তম স্প্যানটি মঙ্গলবার বসানো হয়ে গেলে আগামী ৪ অথবা ৫ ডিসেম্বর ১৭ ও ১৮ নম্বর খুঁটির ওপর ১৮ তম স্প্যান স্থাপনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হয়েছে। পদ্মা মূল সেতুর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ অ্যান্ড কোম্পানি সেতু বিভাগকে এভাবেই তাদের কর্মকাণ্ডের তথ্য জানিয়েছে।



প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, মূল সেতুর বাস্তব কাজের অগ্রগতি- ৮৪ দশমিক ৫০% এবং আর্থিক অগ্রগতি ৭৯ দশমিক ০৮ %। ২০২১ সালের জুন মাসে সেতু দিয়ে গাড়ি চলবে। এখন পর্যন্ত মূল সেতুর ৪২টি খুঁটির মধ্যে ৩৩টি খুঁটির কাজ শেষ। বাকি থাকা ১০টির খুঁটির উপরের অংশের কাজ চলছে। পদ্মা সেতুর স্প্যানের ভেতরে রেলওয়ে স্ল্যাব লাগবে ২ হাজার ৯৫৯টি। এর মধ্যে ২ হাজার ৯২০ টি স্ল্যাব তৈরির কাজ শেষ হয়েছে এবং বাকি স্ল্যাব তৈরি চলতি মাসেই শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সেতুর প্রকৌশলীরা। এখন পর্যন্ত রেলওয়ে স্ল্যাব ৩৬১টি স্থাপন করা হয়েছে।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top